প্রচ্ছদ

শাহপরাণ বাইপাসে মসজিদ ভেঙ্গে ভুমি দখলের চেষ্টা : আদালতে মামলা

২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:৩৭

অপরাধ বাণী

অপরাধ বাণী : সিলেট শহরতলীর শাহপরাণ বাইপাস সিদ্দিকী নগর এলাকায় ‘মা খাদিজা’ জামে মসজিদ ভেঙ্গে মসজিদের ভুমি জবরদখলের অপচেষ্টার ঘটনায় সিলেট আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ‘মা খাদিজা’ মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য সাংবাদিক জসিম উদ্দিন। তিনি ২৩ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে উক্ত দরখাস্থ মামলাটি দায়ের করেন। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণসহ আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, সিলেট শাহপরাণ থানাধিন বাইপাস সিদ্দিকী নগর এলাকায় সামসুদ্দিন আহমদ নামক জনৈক ব্যক্তির মালিকানাধিন দুই একর ভুমি ২০১৪ সালে খরিদ করেন কানাইঘাট উপজেলার বিশিষ্ট শিল্পপতি লন্ডন প্রবাসী শাকুর সিদ্দিকী। ঐ সময় আশেপাশে কোন রকম মসজিদ না থাকায় তিনি নিজস্ব অর্থায়নে একটি মসজিদ ঘর নির্মাণ করেদেন।পাশাপাশি তিনি উক্ত ভুমির একাংশে ‘মা খাদিজা বৃদ্দাশ্রম’,‘মা খাদিজা এতিমখানা’ গড়ে তুলতে কাজ শুরু করেন। তার এমন উদ্দ্যেগে স্বাগত জানান স্থানীয় লোকজন। ঐ মসজিদে নিয়মিত নামাজ আদায় সহ সকল ধর্মীয় কাজ সম্পাদন করে আসছেন স্থানীয়রা। ২০১৮ সালে শাকুর সিদ্দিকী দেশে এসে মসজিদ ঘরটি পাকা করার পাশাপাশি আধুনিক সহল সুযোগ সুবিধা সংযোজন করে দেন। সম্প্রতি সময়ে একটি জালিয়াত চক্রকে সাথে নিয়ে বিয়ানীবাজার উপজেলার মুল্লাপুর গ্রামের আপ্তাব আলীর ছেলে ডাক্তার ফারুক মসজিদ ভেঙ্গে ঐ ভুমি জবরদখল করতে তৎপর হয়ে উঠে। নগরীর কয়েকজন রাজনৈতীক লেবাসধারী চিহ্নিত ক্যাডারকে ভাড়া করে মসজিদ ঘর ভেঙ্গে দেওয়ার জন্য। উল্লেখিত ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা মসজিদে গিয়ে ইমামকে আজান ও নামাজ না পড়াতে হুমকি দেয়। বিষয়টি তিনি এলাকার লোকজনসহ মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে অবহিত করেন। এর ধারাবাহিকতায় ২২ এপ্রিল ডাক্তার ফারুকের নেতৃত্বে ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা মসজিদে গিয়ে ইমামকে হুমকি দেয় এখানে আর আজান দিয়ে নামাজ পড়ালে তাকে প্রাণে মেরে ফেলা হবে। একই ভাবে পরের দিন ২৩ এপ্রিল উক্ত ক্যাডারদের সাথে নিয়ে ডাক্তার ফারুক মসজিদ ভেঙ্গে ভুমি জবরদখল করতে গেলে স্থাণীয় লোকজন বাধ দেন। এ সময় তারা নানা রকম হুমকি ধামকি দিয়ে চলে যায়। বিষয়টি খাদিমপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অবগত হয়ে উভয় পক্ষকে তাদের কাগজপত্র নিয়ে ইউনিয়ন অফিসে বসার কথা বললে কতিপয় ডাক্তার ফারুক চক্র সেখানে তাদের কোন কাগজপত্র নিয়ে আসতে পারেনি। এসব ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে চাপা ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। তাই বাধ্য হয়ে উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য ও শাকুর সিদ্দীকির মনোনিত ব্যক্তি সাংবাদিক জসিম উদ্দিন বাদী হয়ে সিলেট আদালতে উক্ত মামলাটি দায়ের করেন।



এ প্রতিবেদনটি .668 বার পঠিতসংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares