অবশেষে মাইক হাতে রাস্তায় ওসি আহাদ

প্রকাশিত: ১০:০৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯

অবশেষে মাইক হাতে রাস্তায় ওসি আহাদ

অপরাধ বাণী : বাড়ি বৃহত্তর সিলেটের কুলাউড়া উপজেলায়, কর্মরত আছেন বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে। বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন কানাইঘাট থানার ওসি হিসাবে। মাত্র দুই বছরের ব্যবধানে সাধারণ মানুষের মাঝে হয়েছেন ব্যাপক জনপ্রিয়। খেতাব রয়েছে জেলার সেরা আর চৌকস পুলিশ অফিসারের। কর্মক্ষেত্রে যথেষ্ট সুনাম ও দক্ষতার সহিত দায়িত্ব পালন করার পাশাপাশি সামাজিক ভাবেও তিনি সবার কাছে আহাদ ভাই। এলাকার আইনশৃংখলা উন্নয়নে ২৪ ঘন্টা কর্মব্যস্থ থাকার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। গ্রাম্য বিরোধ আর সামাজিক অবক্ষয় রোধে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান,ওয়াজ মাহফিল,সামাজিক বৈঠকে সরেজমিন উপস্থিত থেকে সচেতনেতা সৃষ্টির চেষ্টা করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এবার তিনি নিজেই মাইক হাতে নেমেছে রাস্তায়। ফেরি করে করছেন মাইকিং তার এহেন কর্মকান্ড দেখে হতবাক কানাইঘাটের সাধারণ জনতা। সোস্যাল মিডিয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে হয়ে উঠেছেন মানবতার ফেরিওয়ালা পুলিশ অফিসার। আগামী ২৯ তারিখে সিলেট জেলায় বাংলাদেশ পুলিশে “ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি)”পদে লোক নিয়োগে প্রতারক হতে সাবধান করতে এই গণসচেতনতামূলক প্রচারণার মাইকিং করছেন তিনি। সিলেটের নবাগত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর পক্ষে বুধবার সকাল ১১টায় কানাইঘাট থানা প্রাঙ্গন থেকে সিএনজি যোগে মাইকিং শুরু করে কানাইঘাটবাজার সহ পৌরশহরের বিভিন্ন স্থানে গণসচেতনতামূলক প্রচারণা চালান। মাত্র ১০০টাকার চালান ও ৩ টাকার ভর্তি ফরম সহ মোট ১০৩ টাকায় জেলা পুলিশ লাইন্স মাঠে শারীরিক পরীক্ষার মাধ্যমে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে লোক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে। পর্যায়ক্রমে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের চুড়ান্তভাবে নিয়োগ প্রদান করা হবে। যোগ্য প্রার্থীকে সম্পূর্ণ মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ প্রদান করা হবে। টাউট, বাটপার, অসাধু ব্যক্তিদের প্রলোভনে পা না দিয়ে কোন প্রকার লেনদেন না করার জন্য অনুরোধ করা হয়। কোন ধরনের তদবির করলে প্রার্থীতা বাতিল করা হবে। কেউ ভূয়া সার্টিফিকেট ও সনদপত্র নিয়োগ বোর্ডের সামনে প্রদর্শন করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ব্যাগ ও মোবাইল নিয়ে কোন প্রার্থী মাঠে প্রবেশ করতে পারবে না। এছাড়াও কোন পুলিশ সদস্য অনিয়ম বা আর্থিক লেনদেনে জড়িত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে প্রচারণায় উল্লেখ করে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানানো হয়। প্রতারক হতে সাবধান থাকার জন্য সিলেট জেলা পুলিশের প্রচারনার অংশ হিসেবে মূলত এ গণসচেতনতামূলক প্রচারণা মাইকিং করে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে লিফলেট পৌঁছে দিচ্ছেন কানাইঘাট থানা পুলিশ। মাইকিং করার সময় ওসি আব্দুল আহাদের সাথে ছিলেন থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার জাহিদ, সেকেন্ড অফিসার এস.আই স্বপন চন্দ্র সরকার সহ পুলিশ অফিসারবৃন্দ।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
0Shares

দেশ বিদেশের সবগুলো অনলাইন পত্রিকার লিংক

বাংলাদেশের সকল টিভি চ্যানেল

ভিজিটর কাউন্টার

  • ৮৫৬
  • ২৯২
  • ৩৫৬,২৬৫